ঢাকা সকাল ৯:৫৬, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০ মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম:
তেতুলিয়ায় ট্রাকের ড্রাইভারকে পরিবেশ দুষনের দায়ে অর্থদন্ড প্রদান রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর নতুন দায়িত্বে ওয়াদুদ, মনসুর,বাবর রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স লিঃ এর নব গঠিত কমিটি ও আসবাব পত্র সমবায় সমিতির সাক্ষাত রাঙামাটিতে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান কে প্রেস ক্লাবের সংবর্ধনা মুক্তাগাছা উপজেলার খেরুয়াজানী ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন  বাকৃবিতে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস-২০২৩ পালিত মা হারা অবুঝ তিন সন্তানকে নিয়ে শুয়ে আছেন কর্মহীন বাবা ময়মনসিংহ সদরের চুরখাইয়ে জমি মাপঝোককালে পিতাপুত্র নিহত মুভিবাংলা টিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেছেন সিনিয়র সাংবাদিক আনিসুর রহমান (সাব্বির) সাতক্ষীরায় শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস্ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন নওগাঁর ধামইরহাট সীমান্তে মাদক ব্যবসায়ীরা বিজিবি’র উপর হামলা, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ফাঁকা গুলি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ উপহার দেবেনঃ মসিক মেয়র পার্বত্য চট্টগ্রামের সীমান্ত সড়ক পরিদর্শনে সেনা প্রধান অবিরাম চেষ্টায় প্রতিবন্ধী হয়েও সফল ‘মাহবুবুর রহমান’ গৌরীপুরে শ্যালকের ছুরিকাঘাতে ভগ্নিপতি খুন পঞ্চগড়ে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে ভাতিজাকে হত্যা চট্টগ্রামে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালকের উপর হামলার প্রতিবাদে ধামইরহাটে এলজিইডির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন সুন্দরগঞ্জের ঝিনিয়া স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন  সাতক্ষীরায় ৭৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অংশ গ্রহণে পাঠাভ্যাস উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা মুক্তাগাছা মানকোন ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ক্ষুদে ডাক্তার কার্যক্রম বাস্তবায়নে মসিকের এডভোকেসি সভা মসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নতুন দিগন্ত ময়মনসিংহে কিশোর কিশোরী ক্লাব প্রকল্পের আওতায় আন্তঃক্লাব বাৎসরিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত রোজায় দ্রব্যমূল্য-গাড়িভাড়া বৃদ্ধিরোধে সেনা অভিযান দিন – মোমিন মেহেদী পেশাদার ভালো সাংবাদিক হওয়ার জন্য যা প্রয়োজন ফুলবাড়িয়ার কালাদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরায় ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে কম খরচে ল্যাপরস্কোপিক সার্জারী ক্যাম্প অনুষ্ঠিত রাঙামাটিতে বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার ফ্যামেলি এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার শীতবস্ত্র বিতরণ পঞ্চগড় সদর জগদল থেকে চুরি হওয়া অটো রিক্সা উদ্ধার করেছে পুলিশ জামালপুরে শামীম আহম্মেদের ভয়ংকর থাবায় স্কুল শিক্ষক!

বিলুপ্তির পথে গরু দিয়ে হালচাষ

৭৫ বাংলাদেশ ডেস্ক।। আপডেটঃ সোমবার, ২ জানুয়ারি, ২০২৩, ৬:৩০ পিএম 77 বার পড়া হয়েছে

সময়ের বিবর্তনের সাথে হরিয়ে যাচ্ছে ময়মনসিংহের জেলার গ্রামবাংলার চিরচেনা ঐতিহ্যবাহি হালচাষ। কোকিল ডাকা ভোরে কৃষকরা লাঙ্গল-জোয়াল কাঁধে মুখে পল্লীগীতি-ভাটিয়ালী গেয়ে মুখরিত করে পথাঞ্চল এক জোড়া গরু-মহিষ নিয়ে বেরিয়ে যেত মাঠে হালচাষ করার জন্য। ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত জমিতে কৃষকের লাঙ্গল দিয়ে হালচাষ, ভাটিয়ালি-পল্লীগীতি গানের মধুর সুর মাতিয়ে রাখতো হাট-ঘাট ও মাঠ।

কৃষাণীরা সাজিয়ে নিয়ে যেত সকালের নাস্তা আলুবর্তা, ডাল, পিঁয়াজ কাঁচা মরিচ দিয়ে পান্তাভাত ও দুপুরে গরম ভাত। এমনই ছিল গ্রামবাংলার চিরাচরিত বিলুপ্তির পথে সেই অভুতপূর্ব দৃশ্য। এমন নয়নাভিরাম দৃশ্য চোখে পড়ে না বললেই চলে। সময়ের সাথে দিন বদলাচ্ছে। বদলাচ্ছে মানুষের জীবনধারা। যুগে এসে গেছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির দিনে পাল্টে যাচ্ছে সব কিছুই।

বিজ্ঞানের অগ্রাযাত্রায় নতুন নতুন যন্ত্র আবিষ্কার হওয়ায় বর্তমানে কৃষি কাজেও লেগেছে আধুনিকতার ছোঁয়া। আধুনিকতার স্পর্শে হারিয়ে যাচ্ছে আমাদের ইতিহাস ও ঐতিহ্য। নিত্য নতুন আবিষ্কারের ফলে কৃষকদের জীবনেও এসেছে
নানা পরিবর্তন। আর সেই পরিবর্তনের ছোঁয়াও লেগেছে কৃষিতে। তাইতো কাঠের লাঙ্গলের পরিবর্তে কৃষিক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য আবিষ্কৃত হয়েছে সিডার, ট্রাক্টর ও পাওয়ার টিলারসহ নানান যন্ত্রপাতি। কৃষি প্রধান বাংলাদেশের শতশত বছরের ইতিহাসের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে লাঙ্গল-জোয়াল। চিরায়ত বাংলার রূপের সন্ধান করতে গেলে এই দুই কৃষি উপকরণের কথা যেমন অবশ্যই আসবে, তেমনি আসবে হালের গরুর কথাও।

আধুনিকতার সঙ্গে সঙ্গে হাল চাষের পরিবর্তনে এখন ট্রাক্টর অথবা পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ করা হয়। এক সময় দেশের বিভিন্ন জেলার উপজেলায় বাণিজ্যিক ভাবে কৃষক গরু পালন করতো হাল চাষ করার জন্য। আবার কিছু মানুষ গবাদিপশু দিয়ে হাল চাষকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়ে ছিলেন।

আবার অনেকে তিল, সরিষা, কালাই, বেলি ও আলু চাষের জন্য ব্যবহার করতেন। নিজের জমি চাষের পাশাপাশি অন্যের জমিতে হাল চাষ করে তাদের সংসারের ব্যয়ভার বহন করত। হালের গরু দিয়ে দরিদ্র মানুষ জমি চাষ করে ফিরে পেত তাদের পরিবারের সচ্ছলতা। আগে দেখা যেত কাক আর কোকিল ডাকা ভোরে কৃষক গরু, লাঙ্গল, জোয়াল নিয়ে মাঠে বেরিয়ে পড়তো। এখন আর চোখে পড়ে না গরুর লাঙ্গল দিয়ে চাষাবাদ। জমি চাষের প্রয়োজন হলেই অল্প সময়ের মধ্যেই পাওয়ার টিলারসহ আধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে চলাচ্ছে চাষাবাদ। তাই কৃষকরা এখন পেশা বদলি করে অন্য পেশায় ঝুঁকছেন। ফলে দিন দিন কমে যাচ্ছে গরু দিয়ে হালচাষ।

উপজেলার লামাপাড়া গ্রামের কৃষক এমদাদুল হক জানায়, ছোটবেলায় হাল চাষের কাজ করতাম। বাড়িতে হাল চাষের বলদ গরু ২-৩ জোড়া থাকত। চাষের জন্য দরকার হতো ১ জোড়া বলদ, কাঠ আর লোহার সমন্বয়ে তৈরি লাঙ্গল, জোয়াল, মই, পান্টি (বাঁশের তৈরি গরু তাড়ানোর লাঠি), গরুর মুখের লাগাম ইত্যাদি। আগে গরু দিয়ে হাল চাষ করলে জমিতে ঘাস কম হতো। চাষের সময় গরুর গোবরের জৈব সার জমিতে পড়ত। এতে করে ক্ষেতে ফলন ভালো হতো। এখন নতুন নতুন মেশিন এসেছে সেই মেশিন দিয়ে এখানকার লোকজন জমি চাষাবাদ করে। আমাদের তো টাকা নাই মেশিন কিনে জমি চাষ করার। তাই এখনো গরু, লাঙ্গল, জোয়াল নিয়ে জমিতে হাল চাষ করি। আগে ২০/২৫ টা হাল বিক্রি করতাম। এখন মাসে ৫টা হালও বিক্রি হয় না। লাঙ্গল দিয়ে হালচাষ কমে যাওয়ায় এখন সংসার চালাতে অনেক কষ্ট হচ্ছে।

এছাড়াও সাবের উদ্দিন, কাশেম, খালেকসহ আরো কৃষকরা জানান, কৃষি কাজে লাঙ্গলের ব্যবহার পরিবেশ বান্ধব এবং গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যও বটে। আবহমান বাংলার এ প্রাচীন ঐতিহ্য টিকিয়ে রাখতে শখের বশে হলেও কৃষকদের মাঝে মধ্যে এ পরিবেশ বান্ধব কাঠের তৈরি লাঙ্গল-জোঁয়াল তুলে নেওয়ার কোন বিকল্প নেই। তবে পুরনো সেই ঐতিহ্য ধরে রাখার নিরন্তর চেষ্টায় এখনো উপজেলার কিছু কিছু হাট-বাজারে ওই সকল কৃষি সরঞ্জামের পসরা সাজিয়ে বসেন ব্যবসায়ীরা। তবে সেগুলোর চাহিদা কম থাকায় সেই কারিগরা বাধ্য হয়েই চলে যাচ্ছেন ভিন্ন পেশায়। অথচ এমন একদিন ছিল গ্রাম-বাংলার ঘরে ঘরে।

এ বিষয়ে উপজেলার বেশ কয়েক প্রবীণ কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গরুর লাঙ্গল দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ৪৪ শতাংশ জমি চাষ করা সম্ভব। আধুনিক যন্ত্রপাতির থেকে গরুর লাঙ্গলের চাষ গভীর হয়। জমির উর্বরতা শক্তি বৃদ্ধি ও ফসলের চাষাবাদ করতে সার, কীটনাশকের সাশ্রয় হয়। কষ্ট হলেও গরু দিয়ে হাল চাষ করতে খুব ভাল লাগত। বেঁচে যেত অনেক দরিদ্র কৃষকের প্রাণ। এখন মনে পড়লেই অনেক কষ্ট লাগে। ফিরে পাবনা আর সেই পুরনো দিনগুলো। এভাবেই ধীরে ধীরে হারিয়ে যাবে আমাদের গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য।

মন্তব্য

আপলোডকারীর তথ্য

মোঃ মাইন উদ্দিন উজ্জ্বল

আপলোডকারীর সব সংবাদ
শিরোনাম:
তেতুলিয়ায় ট্রাকের ড্রাইভারকে পরিবেশ দুষনের দায়ে অর্থদন্ড প্রদান রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর নতুন দায়িত্বে ওয়াদুদ, মনসুর,বাবর রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স লিঃ এর নব গঠিত কমিটি ও আসবাব পত্র সমবায় সমিতির সাক্ষাত রাঙামাটিতে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান কে প্রেস ক্লাবের সংবর্ধনা মুক্তাগাছা উপজেলার খেরুয়াজানী ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন  বাকৃবিতে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য দিবস-২০২৩ পালিত মা হারা অবুঝ তিন সন্তানকে নিয়ে শুয়ে আছেন কর্মহীন বাবা ময়মনসিংহ সদরের চুরখাইয়ে জমি মাপঝোককালে পিতাপুত্র নিহত মুভিবাংলা টিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেছেন সিনিয়র সাংবাদিক আনিসুর রহমান (সাব্বির) সাতক্ষীরায় শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস্ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন নওগাঁর ধামইরহাট সীমান্তে মাদক ব্যবসায়ীরা বিজিবি’র উপর হামলা, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ফাঁকা গুলি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ উপহার দেবেনঃ মসিক মেয়র পার্বত্য চট্টগ্রামের সীমান্ত সড়ক পরিদর্শনে সেনা প্রধান অবিরাম চেষ্টায় প্রতিবন্ধী হয়েও সফল ‘মাহবুবুর রহমান’ গৌরীপুরে শ্যালকের ছুরিকাঘাতে ভগ্নিপতি খুন পঞ্চগড়ে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে ভাতিজাকে হত্যা চট্টগ্রামে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালকের উপর হামলার প্রতিবাদে ধামইরহাটে এলজিইডির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানববন্ধন সুন্দরগঞ্জের ঝিনিয়া স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন  সাতক্ষীরায় ৭৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অংশ গ্রহণে পাঠাভ্যাস উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা মুক্তাগাছা মানকোন ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ক্ষুদে ডাক্তার কার্যক্রম বাস্তবায়নে মসিকের এডভোকেসি সভা মসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নতুন দিগন্ত ময়মনসিংহে কিশোর কিশোরী ক্লাব প্রকল্পের আওতায় আন্তঃক্লাব বাৎসরিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত রোজায় দ্রব্যমূল্য-গাড়িভাড়া বৃদ্ধিরোধে সেনা অভিযান দিন – মোমিন মেহেদী পেশাদার ভালো সাংবাদিক হওয়ার জন্য যা প্রয়োজন ফুলবাড়িয়ার কালাদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত সাতক্ষীরায় ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে কম খরচে ল্যাপরস্কোপিক সার্জারী ক্যাম্প অনুষ্ঠিত রাঙামাটিতে বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার ফ্যামেলি এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার শীতবস্ত্র বিতরণ পঞ্চগড় সদর জগদল থেকে চুরি হওয়া অটো রিক্সা উদ্ধার করেছে পুলিশ জামালপুরে শামীম আহম্মেদের ভয়ংকর থাবায় স্কুল শিক্ষক!